Enriching Association between Vidushi Girija Devi and Smt Purnima Chowdhury

 

Told by Smt Meena Banerjee
Obtained by Rajeswary Ganguly Banerjee
Date 21st February, 2017
Place Smt Meena Banerjee’s residence , Rani Kuthi, Kolkata
About the speaker Renowned Music Critic, Musicologist and Music Connoisseur
Tags Purnima Chowdhury, Thumri, Teaching, Phrases, Guru, Purab Ang Gayaki Utsab, Girija Devi, 2012, 2013, SRA
Language Engllish, Bengali

Smt Meena Banerjee Speaks :

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University.

Witnessing Talim Method of Pandit Ulhas Kashalkar and Ustad Shahid Parvez

Told by Smt Meena Banerjee
Obtained by Rajeswary Ganguly Banerjee
Date 21st February, 2017
Place Smt Meena Banerjee’s residence , Rani Kuthi, Kolkata
About the speaker Renowned Music Critic, Musicologist and Music Connoisseur
Tags Ulhas Kashalkar, Shahid Parvez, Behagda, Behagra, Teaching, Phrases, Alap, Vistar, Bistar, Key Phrases, Raaagrup, 2013, SRA, Chanting, Omkar Dadarkar, Nibhay, Sameehan Kashalkar, Guru, Chetla, Shubhranil Sarkar, Sitar, Taan, Beat, Mukhra, Even Beats
Language Engllish, Bengali

Smt Meena Banerjee Speaks :

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University.

 

Legendary Artists performs other art forms at Sangeet Research Academy—Memorable moments shared by Smt Meena Banerjee

Told by Smt Meena Banerjee
Obtained by Rajeswary Ganguly Banerjee
Date 21st February, 2017
Place Smt Meena Banerjee’s residence , Rani Kuthi, Kolkata
About the speaker Renowned Music Critic, Musicologist and Music Connoisseur
Tags SRA, Jhalapala, Artist, 1998, 1999, Vijay Kichlu, Uday Shankar, Almora, Deepali Nag, Dance, Rashid Khan, Odissi, Pallavi, Pratima Bedi, Lakshmi Narayan Mishra, Tabla, Thumri, Ananda Gopal Bandyopadhyay, Mahadev Prasad Mishra, Purnima Chowdhury, Tanmoy Bose, Birju Maharaj, Kathakata, Arun Bhadury, Ulhas Kashakar, Deepali Nag, Purnima Sen, Abdul Rasheed Khan, Ghazal
Language Engllish

Smt Meena Banerjee Speaks :

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University.

EARLY DAYS OF SANGEET RESEARCH ACADEMY

Told by Jyoti Goho
Obtained by Suranjita Paul
Date 21st February 2017
Place ITC Sangeet Research Academy, 1, Netaji Subhash Chandra Bose Road, Tollygunge, Kolkata – 700040
About the speaker Jyoti Goho is a well-known Harmonium player of Indian Classical Music. He is a Musician Faculty in ITC Sangeet Research Academy, Kolkata.
Tags 1974, A.T. Kanan, Guruji, Dagar, Mahadev Prasad Mishra, Ananda Gopal Bandyapadhyay, Bijay Kichlu, A. N.Haksar , Hirabai Barodekar, Nisar Hussain Khan, Latafat Hussain Khan, Tabla, Thumri, Dadra, Claassical, Pune, Kolkata, Benaras, Sishya (Disciple)
Language Bengali

Jyoti Goho speaks:

 

Note:- In this recording Jyoti Goho has referred to his Guru Pandit A.T.Kanan as Guruji. Here he has also mentioned A.N.Haksar (Ajit Narain Haksar) as a Director of ITC Sangeet Research Academy. Actually Mr. A.N. Haksar was the Chairman of ITC Sangeet Research Academy – Editor

Text version:

একচুয়ালি, (Actually) এই একাডেমী যখন শুরু হয়, মানে আমি তো একাডেমী শুরু হওয়ার আগে থাকতে ১৯৭৪- এ গুরুজীর কাছে যাই। আর কিচলু সাহেব গুরুজির কাছে খুব আসতেন, একসঙ্গে রেওয়াজ হত, শিখতেন টিকতেনও আমার দেখা। উনি ডাগর সাহেবের কাছে শিখতেন একচুয়ালি কিন্তু বন্দিশ শেখা বা কিছু, গুরুজীর কাছে বসতেন। তো কিচলু সাহেব একদিন বানিয়েছিলেন ফিক্সচার্ট, যে কি ভাবে কি হবে গুরু শিষ্য পরম্পরায়। সেইটা তখনকার যে ডিরেক্টর, আই. টি. সি –এর (I.T.C ) এ.এন. হাক্সার (A.N. Haksar), ওনাকে দেখান। ওনার গান-বাজনা খুব ভালো লাগতো। তো ওনার দেখে খুব পছন্দ হয়েছিল। তখন উনি বলেছিলেন –ঠিক হ্যায় তুম করো, অউর আই. টি. সি পিছে হোগা। তো এটা বিশাল সাপোর্ট। তো উনি সেটা নিয়ে গুরুজীর কাছে এসেছিলেন যে কানন সাহেব দেখিয়ে (বললেন) এ্যায়সা এ্যায়সা কিয়া হ্যায়, অউর হাক্সার সাহাব বোলা হ্যায় আই. টি. সি হেল্প করেগা।

তখন প্রথম সেটা নিয়ে গুরুজীর সাথে আলোচনা হয়। তখন গুরুজী খুব বড় হেল্প করেছিলেন। তখন গুরুজি কে কিচলু সাহেব বলেছিলেন যে যত বড় বড় গুরু আছে ইন্ডিয়াতে, তো আপনাকে বলতে হবে। কারন তখন কিচলু সাহেবের কথাতে তারা আসবে না। গুরুজীর একটা ভয়েস আছে, একজন সিনিয়র লোক। হিরাবাঈ বারোদেকর তারপর নিসার হুসেন খাঁ সাহেব যত… লতাফৎ হুসেন খাঁ সাহেব তো কিচলু সাহেবের গুরুও ছিলেন। (কিচলু সাহেব) বললেন উনকো ম্যায় লাউঙ্গা। লেকিন বাকি সব আপকো (লানা হ্যায়)। তো গুরুজী সেগুলো করেছিলেন।

হিরাবাঈ বারোদেকর পুনা থেকে আসতে চান নি। গুরুজি খুব বলে কয়ে রাজি করিয়েছিলেন। নিসার হুসেন খাঁ সাহেবও আসতে চান নি। বলেছিলেন- ক্যায়া কহে রহে হো ক্যায়া, ঘর বার ছোড়কে কলকত্তা যাকে রহুঙ্গা? তো গুরুজী খুব কনভিন্স করিয়েছিলেন। নিসার হুসেন খাঁ সাহেব খুব ভালোবাসতেন গুরুজীকে। (উনি বলেছিলেন) – ঠিক হ্যায়, তুমহারে লিয়ে ম্যায় আ রাহা হু। তো উনিও এসে থেকে গিয়েছিলেন।

একজন থাকতে পারেন নি, গুরুজীর কথায় এসেছিলেন। উনি হচ্ছেন বেনারসের মহাদেব প্রসাদ মিশ্র। উনি আবার অনেকের গুরু। উনি আবার তবলা খুব ভাল বাজাতেন। উনি ঠুমরীর বিশেষ লোক ছিলেন মহাদেব প্রসাদ মিশ্র। ওনার কাছে আনন্দ গোপাল বন্দ্যোপাধ্যায় শিখতো তবলা। তবলা ভীষন ভালো বাজাতেন (মহাদেব প্রসাদ মিশ্র)। তো ওনাকে গুরুজী বলেছিলেন যে ঠুমরী দাদরা এ সবের জন্য গুরু এস. আর. এ তে, কিচলু সাহেব বলেছিলেন। ওনাকে বলতে উনি কিছুতেই আসতে চান নি কিন্তু গুরুজী বুঝিয়ে সুঝিয়ে এনেছিলেন। কিন্তু উনি কিছু দিন বাদে গুরুজীকে খুব খোলাখুলি বলেছিলেন যে – ম্যায় অগর কুছ দিন কলকত্তা রহুঙ্গা তো ম্যায় মর জাউঙ্গা। গুরুজী বলেছিলেন – ক্যায়া হুয়া হ্যায় আপকো? (মহাদেব প্রসাদ মিশ্র বলেছিলেন)- নহি ইস শহর মে ইটঁ কাঠ পত্থর, ইহা মেরা দিল নহি লাগতা। তখন উনি(আরো) বলেছিলেন বনারসে ম্যায় ক্যাসা রহতা হু? সাইকেল লেকে শিষ্য কে ঘর জাকে শিখাকে আতা হু, ওহি মেরা আনন্দ হ্যায়।

বৃষ্টি পড়ছে, সাইকেলে করে যাচ্ছে, শিষ্যর বাড়ীতে, শেখাতে যাচ্ছে। বলছেন – ওহি মেরা লাইফ হ্যায়। ঔর ইহা আপ ইতনে আচ্ছে সে রখখে হ্যায়, ম্যায় মর যাউঙ্গা।

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University

 

Sangeet Research Academy Administration and the Musicians

 

Told by Jyoti Goho
Obtained by Suranjita Paul
Date 21st February 2017
Place ITC Sangeet Research Academy, 1, Netaji Subhash Chandra Bose Road, Tollygunge, Kolkata – 700040
About the speaker Jyoti Goho is a well-known Harmonium player of Indian Classical Music. He is a Musician Faculty in ITC Sangeet Research Academy, Kolkata.
Tags Nisar Hussain Khan, 1979, 1984-85, Guru, Vijay Kichlu, Guru, Supervisor, A. T. Kanan, Administration
Language Bengali

Jyoti Goho speaks:

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University

Hearing-Aid Volume Matters

Told by Jyoti Goho
Obtained by Suranjita Paul
Date 21st February 2017
Place ITC Sangeet Research Academy, 1, Netaji Subhash Chandra Bose Road, Tollygunge, Kolkata – 700040
About the speaker Jyoti Goho is a well-known Harmonium player of Indian Classical Music. He is a Musician Faculty in ITC Sangeet Research Academy, Kolkata.
Tags 1985, Sangeet Research Academy, Nisar Hussain Khan, Bhuwalka award, A.T. Kanan, Harmonium, Jyoti Goho, Tanpura, Rashid khan, Tabla, Aslam khan, Gulam Akbar Khan, Zulfiqar Khan
Language Bengali

Jyoti Goho speaks:

Text version:

এটা সালটা হচ্ছে ১৯৮৫ এরকম হবে। তখন এখানে এস.আর.এ.(Sangeet Research Academy)তে রাশিদের(রাশিদ খান)দাদু নিসার হুসেন খাঁ সাহেব গুরু আছেন, তো নিসার হুসেন খাঁ সাহেব কে ভুওয়ালকা এ্যাওয়ার্ড দেওয়া হবে।তো তখন(তিনি)এ্যাওয়ার্ড-ও নেবেন আর একটু গানও করবেন। তা আমার গুরুজী বললেন আমাকে তুমি ওনার সঙ্গে বাজাবে।তা আমি গিয়েছি বাজাতে। এবারে নিসার হুসেন খাঁ সাহেব তখন ওই চেয়ারে মানে একটু উঁচু টুলে বসে গান করেন, মানে পা মুড়ে বসতে পারেন না অনেক বয়স হয়ে গেছে। তখনই ওনার বয়স ৮৩-৮৪(বছর)এরকম হবে। উনি হারমোনিয়মে সুর দিতে বললেন স্টেজেই, সুরটা মেলানো হচ্ছে, তো আমি সুর দিচ্ছি বেলো করে। একটু পরেই উনি বলছেন, আস্তে, ইতনা জোর কিঁউ বাজা রহে হো, আস্তে।তা আমি একটু আস্তে বাজালাম।(নিসার হুসেন খাঁ)নহি নহি থোড়া আস্তে বাজাও, বহত জোর (বাজা রহে হো)।যাইহোক, ওই করতে করতে তানপুরাটা মেলানো হল।এবারে গান শুরু হয়েছে।উনি গাইছেন, মাঝখানে যখন গ্যাপ হচ্ছে আমি যখন একটু বাজাচ্ছি, উনি সবসময়ে (বলছেন)ওহ! ইতনা জোর নহি আস্তে বাজাও। আমাকে বেশি জোরে বলছেন না – আস্তে আস্তে। আর আমি আরো আস্তে করে দিচ্ছি বাজনাটা। বড় ওস্তাদ, রশিদের দাদু বলে কথা, উনি বলছেন। আর আমিও তো বেশ ঘাবড়ে যাচ্ছি বার বার এরকম বলছেন কেন?আমি আরো আস্তে করে দিচ্ছি।এবারে এত আস্তে হয়েছে যে আমি নিজেরটাই নিজে শুনতে পাচ্ছি না।তাতেও ওনার জোর লাগছে।তারপর হলে সব প্রোগ্রাম হয়ে গেল। এবারে গুরুজী এসেছেন।গুরুজী তো সাউথ-ইন্ডিয়ান ছিলেন, ওনার বাংলা বলাটা অন্যরকম। উনি এসে আমাকে বলছেন,আরে!কি রে তুই? পাগল নাকি, তোমার তো কিছু শুনতেই পেলাম না রে, কি রে? তুমি হারমোনিয়ম কি বাজাচ্ছো তুমি? কিচ্ছু শুনতেই পেলাম না তো, কি রে? আমি তখন গুরুজী কে আস্তে করে বললাম, গুরুজী উনি খালি আস্তে আস্তে বলছিলেন, ওনার জোরে জোরে লাগছিল।(গুরুজী)-হ্যাঁ আমি সেটা দেখেছি, বার বার তোমায় কি বলছিল, আচ্ছা! তো সেটা বোঝা যাচ্ছিল না কেন হল।তারপরে জানা গেল, ওনার সঙ্গে একজন তবলা বাজাচ্ছিল আসলাম খান। তো সে পরে আবিস্কার করল। (নিসার হুসেন খাঁর)ওনার জামাই ছিল আর ওনার ছেলে ছিল, ওনার জামাই গুলাম আখবর খান আর ছেলে হচ্ছে জুলফিকর। ওদের কাছে গল্প করেছে, প্রোগ্রামের পরে পরেই জেনেছে(আসলাম খান), যে আমি (জ্যোতি গোহো)যেদিকে বসেছিলাম, মানে বাঁ কানে ওনার যে ওই কানের যন্ত্র লাগানো ছিল তার ভলিয়ুমটা খুব বাড়ানো ছিল।তাই আর বাঁ দিকে যত আস্তেই হোক না কেন ওনার খুব জোরে লাগছিল।তো সেইভাবেই ওইটা (ঘটনাটা)হয়েছে আরকি।পরে রশিদকে বললাম এইরকম ঘটনা। রশিদ বলছে, – হ্যাঁ দাদুর তো এইটা খুব প্রোবলেম হয়। ওদের কোয়াটারসে উনি সকালে বসে কাগজ পড়ছেন বা চা খাচ্ছেন, জানালার কাছে বসে। আর রশিদ (খান), গুলাম আখবর (খান)এরা সব রয়েছে আশেপাশে।আর জানালার বাইরে কাক ডাকছে আর উনি খুব বিরক্ত হয়ে যেতেন। ওই মেশিন বাড়ানো থাকতো, কাকের আওয়াজ গুলো কানে ভীষন জোর জোর আসতো আর উনি চিৎকার করতেন, – যব দেখো ইয়ে কাউয়া ড্যাও ড্যাও করতা হ্যায়। উসকো ভাগাও ভাগাও ইধারসে।সুভা সুভা ইয়ে কাক কান খারাপ কর দেতা হ্যায় ড্যাও ড্যাও ড্যাও ড্যাও করকে। আর ওরা বাইরে এসে কাক তাড়াতো।

 

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University

 

Efforts of Deploying non-routine Powers in Influencing Musicians

 

Told by Jyoti Goho
Obtained by Suranjita Paul
Date 21st February 2017
Place ITC Sangeet Research Academy, 1, Netaji Subhash Chandra Bose Road, Tollygunge, Kolkata – 700040
About the speaker Jyoti Goho is a well-known Harmonium player of Indian Classical Music. He is a Musician Faculty in ITC Sangeet Research Academy, Kolkata.
Tags Panditji, Bhimsen Joshi, Shiv kumar Sharma, Hariprasad Chaurasia, Anada Gopal Bandyapadhyay, Nazrul Manch, Kolkata Sradhyanjali, 1995, Harmonium, Grand Hotel, Whole Night Programme, Accompany, Fees, Payment
Language Bengali

Jyoti Goho speaks:

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University

 

Jyoti Goho’s First Accompaniment with Pt. Bhimsen Joshi

Told by Jyoti Goho
Obtained by Suranjita Paul
Date 21st February 2017
Place ITC Sangeet Research Academy, 1, Netaji Subhash Chandra Bose Road, Tollygunge, Kolkata – 700040
About the speaker Jyoti Goho is a well-known Harmonium player of Indian Classical Music. He is a Musician Faculty in ITC Sangeet Research Academy, Kolkata.
Tags 1994, America Tour, ITC Sangeet Research Academy,  Rashid Khan, Nisar Hussain Khan, Panditji, Bhimsen Joshi, Shahid Parvej, Rabindra Sadan, Tabla, Harmonium, Ananda Gopal Bandyapadhyay, Jyoti Goho, Ajay Chakraborty, Green Room, Bhairava, Sitar, Patiala Style, Hall, Programme, Accompany
Language Bengali

Jyoti Goho speaks:

File A

File B

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University

 

Trick of an Organizer unveiled

Told by Jyoti Goho
Obtained by Suranjita Paul
Date 21st February 2017
Place ITC Sangeet Research Academy, 1, Netaji Subhash Chandra Bose Road, Tollygunge, Kolkata – 700040
About the speaker Jyoti Goho is a well-known Harmonium player of Indian Classical Music. He is a Musician Faculty in ITC Sangeet Research Academy, Kolkata.
Tags Sutanati Conference, Doverlane music Conference, P.L.Das, Organiser, Tabla, Harmonium, Panditji, Bhimsen Joshi, 1994
Language Bengali

Jyoti Goho speaks:

A. Throughout this recording Jyoti Goho has addressed Pandit Bhimsen Joshi as Panditji. B. The incident happened after 15 days of ITC-SRA Music Program in memory of Ustd.  Nisar Hussain Khan in   1994. – Editor

 Text version:

সূতানুটী কনফারেন্স, ওখানে বাজাতে গিয়েছি। এবারে গান হয়ে গেছে। ওই আনন্দগোপালদা(আনন্দগোপাল বন্দ্যোপাধ্যায়)আর আমি(জ্যোতি গোহো)বাজিয়েছি।গান হয়ে যেতে ওদের ঘরের মধ্যে উনি বসে আছেন আর ডোভার লেনের তখন পুরানো লোক পি.এল. দাস বলে একজন অরগানাইজার, ওনার সঙ্গে ক্লোজ সম্পর্ক, ওরাও বসে আছে। তো উনি হঠাৎ আমাদের ডাকলেন, দুজনকেই। আমরা একটু দূরে ছিলাম। (বললেন)আপলোগ ইধার আইয়ে। ওঁর সামনে গেলাম।পন্ডিতজী বলে প্রনাম করলাম।(পন্ডিতজী)আচ্ছা, বলে আগের একটা ডেট বললেন, ইস তারিখ মে আপলোগ কাঁহা থে? তো আনন্দদা বলল পন্ডিতজী হামদোনো হি খালি থে।(পন্ডিতজী)আচ্ছা! ইয়ে দাস নে বোলা আপলোগ হ্যায় হি নহি। এবারে ব্যাপার হয়েছে কি আমাদের বলেই নি, আর অন্য একম্পানি দিয়ে কমিশনে কাজ করে আবার।(পন্ডিতজী)দাস নে বোলা থা ইয়ে। দাস ইধার আও বলে আবার তাকে ডেকেছে। তুমনে বোলা ইয়ে লোগ নহি হ্যায়, ইয়ে লোগ বোল রহে থে। ক্যায়া হুয়া? সে দাসদা আর কি বলবে। এদিক ওদিক বলে একটু কাটাবার চেষ্টা করলেন, পন্ডিতজীও বুঝতেই পারলেন একটা কিছু গড়বড় আছে। ঠিক হ্যায় ঠিক হ্যায় বলে আর কিছু বললেন না। এটা একটা ছোট ঘটনা।

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University

Tags: Accompaniment, Concert Management

A.T. KANAN SHARING STAGE WITH BADE GHULAM ALI AND RAVI SHANKAR

Told by Jyoti Goho
Obtained by Suranjita Paul
Date 21st February 2017
Place ITC Sangeet Research Academy, 1, Netaji Subhash Chandra Bose Road, Tollygunge ,Kolkata – 700040
About the speaker Jyoti Goho is a well-known Harmonium player of Indian Classical Music. He is a Musician Faculty in ITC Sangeet Research Academy, Kolkata.
Tags A.T.Kanan,  Kolkata, 20C Nilmani Mitra Street, Darjipara, 1944, 1945, Boubazar, Paying Guest, Pathuriyaghata Street, Manmatha Ghosh, Bade Gulam Ali Khan, Ravi Shankar, Whole Night Programme, Tabla Player, Malkaunsh, Backstage, Organiser, Taan
Language Bengali

Jyoti Goho speaks:

Throughout  this recording Jyoti Goho has referred to his Guru Pandit A.T.Kanan as Guruji – Editor

Text version:

গুরুজী কোলকাতায় এসে প্রথমে ছিলেন পেয়িংগেস্ট একটা বাড়িতে। ওটা হচ্ছে ২০ সি নীলমনি মিত্র স্ট্রীট। সেটা ওই দর্জিপাড়ার কাছে, প্রথমে ওখানে কিছু দিন ছিলেন। ওটা তো শুরুর দিকে, ওই ১৯৪৪-৪৫ এই সময়। তারপরেতে উনি চেঞ্জ করে বউবাজারে একজনের বাড়িতে এসেছিলেন। তো সেই ভদ্রলোক আবার খুব গান বাজনার রসিক লোক, শুনতে টুনতে যান এই রকম। কিন্তু সেই ভদ্রলোক যখন ওনাকে পেয়িংগেস্ট এর কথা হয় (বলেন), ভদ্রলোকের পছন্দ নয় বাড়িতে গান বাজনা হোক, কেউ গান করবে তাকে দেখবে আরকি। কিন্তু উনি নিজে শুনতে যেতেন। তো সেইটে গুরুজি জানতেন যে উনি বাড়িতে গান বাজনাটা পছন্দ করেন না।

(ভদ্রলোক)জিজ্ঞেস করেছিলেন গুরুজীকে যে তুমি কি গান টান কর নাকি, কিছু কর? তো গুরুজী বলেছিলেন না না আমি কিছু করি না। তাহলে তো থাকতে দেবে নাতো। তা সে থাকতে দিয়েছিল। এইবারে তখন তো ওনাকে (গুরুজীকে) প্র্যাকটিস করতে হবে, বা কিছু করতে হবে, কি করে করবেন? তো ভদ্রলোক যখন বেরিয়ে যেতেন, সেই বাড়িতে একটা জলের পাম্প ছিল, সেই পাম্পটা চললে তার থেকে একটা সুরের আওয়াজ আসতো। যখন পাম্পটা চলতো, ওই আওয়াজটা আসতো, তখন একটু করতেন আরকি, ওই খালি গলাতে সুরটা নিয়ে। তাছাড়া ওনার কিছু রেওয়াজ হোত না। তো এইরকম কিছু দিন চলতে চলতে একদিন ভদ্রলোক বললেন একটা হোল-নাইট প্রোগ্রাম আমি শুনতে যাচ্ছি, তুমি কি আমার সঙ্গে যাবে? গুরুজী বললেন- হ্যাঁ যাব! (ভদ্রলোক) বললেন চলো, বলে নিয়ে গেলেন।

সেটা হচ্ছে পাথুরিয়াঘাটা স্ট্রীটে মন্মথ ঘোষের বাড়ি। ওখানে সারা রাতের প্রোগ্রাম – প্রথমে বড়ে গোলাম আলী খান সাহেব তারপরে রবিশঙ্করজী, অর্ধেক অর্ধেক দুজনে, সারারাত। প্রথমে বড়ে গোলাম আলী খান সাহেবের গান হয়ে গেছে। সব তো ওই হলঘরে লোকজন বসে, সব গিলে করা পাঞ্জাবি, ধুতি, তখনকার সময়ের কোঁচানো ধুতি,সব রসিক শ্রোতা। ভদ্রলোকের পাশে গুরুজী বসেছিলেন। তো গোলাম আলী খানের গান হয়ে যেতে হঠাৎ ভদ্রলোক কে গুরুজী বলছেন, আর তার আগে উনি দেখেছেন মন্মথবাবু যিনি বাড়ির মালিক, উনি ওই ভদ্রলোকের সাথে মাঝে মাঝে এসে কথা টথা বলছিলেন। (গুরুজীর) দেখে মনে হয়েছে ওনার (ভদ্রলোকের) বন্ধুর মতো আর কি।

(গুরুজী বলছেন ভদ্রলোক কে) – আচ্ছা, আমাকে এখানে একটু গাইতে দেবেন? আপনার তো খুব বন্ধু, একটু বলে আমাকে একটু গাইতে দেবেন? তো ভদ্রলোক বলছেন – কি বলছো কি তুমি! চুপ করো। এখানে গোলাম আলী খান সাহেব গেয়েছেন তারপর তুমি গান করবে!! হ্যাঁ! একদম কথা বলবে না। আমার সাথে এসেছো চুপ (করে বসো)। ভদ্রলোক চিৎকার করে রেগে (গেলেন)। মন্মথবাবু পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন তখন। মন্মথবাবু দাঁড়িয়ে (জিজ্ঞাসা করলেন) কি হয়েছে কি? কি হল? আর তখন একটু ইন্টারভাল মতো ছিল, তখন লোকেরা একটু চা টা খাচ্ছে, কিছু লোক বাইরে গেছে চা খেতে। (ভদ্রলোক বলছেন) দেখো না এই ছেলেটা নাছোড়বান্দা, বলছে গাইবে। কোনদিন গান শোনে নি, কিচ্ছু না, এখন বলছে গাইবে একটু। তো ভদ্রলোক (মন্মথবাবু) বলছেন- গাইবে বলছে? তো ঠিক আছে গাইতে পারে, কিন্তু দশ মিনিট। তারপর ওনাকে (ভদ্রলোক কে) বলছে এখন তো চা টা খাওয়া হচ্ছে, গাক না দশ মিনিট কি আছে? কিন্তু দশ মিনিটের বেশি না, তারপর রবিশঙ্করজী বসবেন। গুরুজী বলেছেন – হ্যাঁ, দশ মিনিটেই হবে। রাজি হয়ে গেছেন। এবারে গোলাম আলী খানের সাথে যারা বাজিয়েছেন, তারা তো বাজাতে ডিনাই (Deny) করেছে, তাদের বলা হয়েছিল। তারা বলেছে কে চেনে না, কার সঙ্গে বাজাবে? তারা বলেছে নহি নহি হমলোগ নহি বাজায়েঙ্গে। ডিনাই করেছে। তো পাড়ার একজন তবলা প্লেয়ার সে শুনতে এসেছিল, তাকে চিনতো, (তাকে বলেছে) এই একটু বাজিয়ে দে তো, একটু গাইবে, এসব বলেছে। শুধু তানপুরা মিলিয়ে, অন্য কিছু যন্ত্রও ছিল না, শুধু তানপুরা মিলিয়ে তবলার সঙ্গে ওই মালকোষটাই, যেটা আবদুল করীম খাঁর কাছে শুনেছিলেন। দশ মিনিটের মধ্যে গেয়ে শেষ করেছেন। শেষ করতেই সব লোকের ভীষন, আর শেষ করতে শুধু তাই নয়, যখন আরম্ভ করেছেন দু-এক মিনিটের মধ্যেই বাইরে যারা চা টা খাচ্ছিল, চায়ের কাপ নিয়ে ভেতরে এসে চুপ চাপ বসেছে। আর তখনকার সময়  শ্রোতারা তো বেশ সমঝদার ছিল। তারা চুপচাপ বসে শুনেছে। এবারে শুনে তাদের কিউরিওসিটি হয়েছে এ কোথা থেকে এসেছে? কি ব্যাপার? এত ভালো গলা।  তো সব স্টেজের সামনে এসে জিজ্ঞেস করছে – তোমার বাবার নাম কি? কি ইয়ে ? তখনকার সময়ে গুরুজীর বাবার নাম অনেকে জানতো টানতো। (শ্রোতারা বলছে) ওহ! তুমি ওনার ছেলে, এই সব। গোলাম আলী খাঁ সাহেব ব্যাক স্টেজে ছিলেন পিছনে। গোলাম আলী খাঁ সাহেব আবার অরগানাইজার কে (Organizer) বলেছেন, কে গাইছিল ওকে ডেকে আনো আমার সামনে। তখন উনি ওনাকে দেখেন নি, তারপরে ওনার কাছে যান। তখন উনি (গোলাম আলী খাঁ সাহেব) তারিফ করে বলেছিলেন (গুরুজীকে) তোমার গলা খুব ভালো, তানের খুব সাফাই আছে। তোমার খুব ভালো হবে। এই সব বলেছিলেন।

Data processed at SAP-DRS Lab, Department of Instrumental Music, Rabindra Bharati University